নির্মম বর্বরতা, ১৪ মাসের শিশুকে আছাড় দিয়ে হত্যা

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় ১৪ মাস বয়সী ফাতেমা নামে এক শিশুকে আছাড় দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিশুটি।

এ ঘটনার পর থেকে ঘাতক সাজু পলাতক রয়েছেন। নিহত শিশু ফাতেমা সারিয়াকান্দি উপজেলার হাটশেরপুর গ্রামের সাইদুল আকন্দের মেয়ে।

প্রতিবেশীরা জানান, হাটশেরপুর গ্রামে সাইদুল আকন্দ ও সাজুর পরিবার পাশাপাশি বসবাস করেন। রোববার (০৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে গ্রামের রাস্তায় খেলা করছিল সাজুর ছেলে টিটু (৫) ও সাইদুলের মেয়ে ফাতেমা। একপর্যায়ে টিটুর কান্না শুনে বাবা সাজু বাড়ি থেকে বের হন এবং ওই রাস্তায় গিয়ে ১৪ মাস বয়সী ফাতেমাকে আছাড় দেন।

পরে ফাতেমাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা ফাতেমাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু টাকার অভাবে ঢাকায় নিয়ে যেতে না পেরে সোমবার রাতে ফাতেমাকে সারিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফাতেমা মারা যায়।

ফাতেমার বাবা সাইদুল আকন্দ বলেন, এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই সারিয়াকান্দি থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়। তবে থানা থেকে এসআই হেলাল ঘটনাস্থলে যাওয়ার কথা বললেও যাননি। ঘটনার পর থেকে ঘাতক সাজু এবং তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন।

সারিয়াকান্দি থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) হেলাল বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। তবে অভিযোগ হাতে না পাওয়ায় ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়নি। শিশুটি মারা যাওয়ার খবর পেয়ে এখন ঘটনাস্থলে যাচ্ছি আমি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *