বরগুনায় শ্বশুরকে ফোন দিয়ে স্ত্রীর লাশ বারান্দায় রেখে পালালেন স্বামী

বরগুনায় চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠেছে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজনদের বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের ছোনবুনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূর নাম মোসা. আমেনা বেগম (২০)। তিনি ছোনবুনিয়া এলাকার মো. আবুল সরদারের মেয়ে এবং একই এলাকার সুমনের (২৭) স্ত্রী।

নিহতের বাবা আবুল সরদার বলেন, আমি ভোরে ফজরের নামাজ পড়েতে ঘুম থেকে উঠি। এ সময় আমার জামাতা সুমন আমাকে ফোন দিয়ে বলে, আমেনা খুব অসুস্থ। আপনি তাড়াতাড়ি আমাদের বাড়িতে আসেন। আমি তখন সুমনকে বলি, তুমি তাড়াতাড়ি আমেনাকে হাসপাতাল নিয়ে যাও। তখন সুমন বলে, আমেনাকে হাসপাতাল নেয়া লাগবে না। এরপর আমি মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে দেখি- ঘরের বারান্দয় মৃত অবস্থায় আমেনার মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। ঘরে তালা দিয়ে বাড়ির লোকজন পালিয়ে গেছে।

নিহত আমেনার চাচা জালাল আকন জানান, আমেনার মৃত্যুর কারণ নিয়ে তার শ্বশুর বাড়ির স্বজনরা একেক সময় একেক কথা বলে। এতে আমাদের সন্দেহ হয়। এছাড়াও তারা আমেনার মৃত্যুর বিষয়টিকে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার প্রস্তাব দেয়, তখনই আমরা নিশ্চত হই যে, আমেনাকে খুন করা হয়েছে।

এদিকে নিহত গৃহবধূর শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাড়িতে না থাকায় এ বিষয়ে জানতে তাদের কারও সঙ্গে যোগাযোগ কারা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবীর মোহাম্মদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে ওই নারীর শ্বশুর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *